জিমেইল বা গুগল অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম!

বর্তমান যুগে অনলাইন কিংবা অফলাইন দুই জায়গাতেই জিমেইলের আইডির গুরুত্ব অপরিসীম। দিন দিন প্রতি সেক্টরে জিমেইলের ব্যবহার বেড়েই চলছে। বর্তমানে অনেকেই জানি জিমেইল আইডি তৈরি করতে, আবার অনেকে জানি না। যারা জানি না, তাদের জন্য আজকের এই লেখাটি। অনেকেই ভাবে জিমেইল এবং গুগল অ্যাকাউন্ট দুইটা আলাদা বিষয়। কিন্তু আদতে জিমেইল গুগলেরই একটা প্রোডাক্ট এবং দুটোই একই জিনিস। প্রফেশনাল সকল কাজে জিমেইল ছাড়া যেন চলেই না। তাই আজ আমরা জানবো- জিমেইল অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে।

জিমেইল অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম

জিমেইল একাউন্ট খোলা খুবই সহজ। আপনি মাত্র দুই মিনিটে তৈরি করে নিতে পারেন নিজস্ব জিমেইল আইডি। আপনি চাইলে ফ্রি ইমেইল আইডি বানানোর জন্য জিমেইল ছাড়াও Hotmail, Yahoo দিয়েও ইমেইল তৈরি করতে পারেন। তবে যেহেতু মোবাইল বা কম্পিটারে গুগল প্রয়োজন, তাই গুগলের প্রোডাক্ট হিসাবে জিমেইল অনেক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ।

আরও পড়ুন: বেস্ট প্রাইসে ডোমেইন কিনবেন কীভাবে?

• জিমেইল একাউন্ট খুলতে সর্বপ্রথম আপনাকে মোবাইল বা ল্যাপটপে ক্রোম ব্রাউজারে বা অন্য যেকোনো ব্রাউজারে গিয়ে gmail.com লিখে সার্চ করতে হবে। তবে সবচেয়ে সুবিধাজনক হলো ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে ওয়েব ব্রাউজারে গিয়ে সার্চ করলে। gmail.com লিখে সার্চ করার পর একটা পেজ আসবে।

• ওই পেজে আপনি একটা বাক্স দেখতে পাবেন, যেখানে আপনাকে সাইন ইন করতে বলা হবে। একটা আইডি আর পার্সওয়ার্ড দিয়ে। কিন্তু যেহেতু আপনার জিমেইল আইডি নেই। তাই আপনি এর নিচে create account অপশনে ক্লিক করবেন।

Create account অপশনে ক্লিক করার পর আপনি নতুন আরেকটি পেজে প্রবেশ করবেন। যেখানে একটা ফর্ম থাকবে, আপনাকে সেখানে কিছু পার্সোনাল ইনফরমেশন দিতে হবে। যেমন: ফার্স্ট নেম, সেকেন্ড নেম, জিমেইল আইডি, পাসওয়ার্ড, কনফার্ম পাসওয়ার্ড।

ফার্স্ট ও সেকেন্ড নামে আপনি আপনার নাম দেবেন। যেমন ধরুন, আপনার নাম রফিক ইসলাম। সে ক্ষেত্রে ফার্স্টে রফিক আর সেকেন্ডে ইসলাম লিখবেন। অবশ্যই ইংরেজিতে লিখবেন। এরপর আপনার পছন্দের জিমেইল দেবেন, যেমন: rofiqislam01@gmail.com। এরপর আট ডিজিটের একটা পাসওয়ার্ড দিন, পরে কনফার্ম পাসওয়ার্ড দিন। এ ক্ষেত্রে দুটি পাসওয়ার্ড কিন্তু একই দেবেন।

আরও পড়ুন: ৫টি ইন্টেরেস্টিং এনড্রয়েড এপ ২০২২!

আপনার দেওয়া জিমেইল আইডি আর পাসওয়ার্ড গুলো কিন্তু অবশ্যই মনে রাখবেন। কেন না, এর মাধ্যমেই আপনি পরবর্তীতে এই অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন। সব ঠিকঠাক মতো দেওয়া হলে, এরপর Next অপশনে ক্লিক করুন।

Next অপশনে ক্লিক করলে আপনি নতুন একটি পেজে প্রবেশ করবেন। সেখানে আরেকটি ফর্ম থাকবে। যেটাতে, মোবাইল নাম্বার, জন্মতারিখ, রিকোভারি মেইল, লিঙ্গ অপশন থাকবে।

মোবাইল নাম্বার ছাড়াও মেইল আইডি বানানো যায়। কিন্তু আপনি যদি কখনো আইডির পাসওয়ার্ড হারান, সেক্ষেত্রে মেইল আইডিটি ফিরে নাও পেতে পারেন। তাই অবশ্যই মোবাইল নাম্বার দিয়ে জিমেইল আইডি খুলুন।

এরপর, সঠিক জন্মতারিখ দেবেন। লিঙ্গ বা জেন্ডার অপশনে আপনি ছেলে না মেয়ে সেটা দেবেন। এরপর আসে রিকোভারি মেইল, এ ক্ষেত্রে আপনার যদি নিজের বা পরিচিত বিশ্বস্ত কারও কোনো মেইল থাকে সেটা দিতে পারেন। আর না দিলেও চলবে। এরপর আবার নিচের Next অপশনে ক্লিক করুন।

• এই পর্যায়ে Next অপশনে ক্লিক করলে আপনি আবার নতুন একটি পেজে প্রবেশ করবেন। verify your mobile number নামে একটা অপশন থাকবে, যেখানে আগের পেজে দেওয়া মোবাইল নাম্বারটি ভেরিফাই করার জন্য আপনার মোবাইলে একটি কোড যাবে।

এইজন্য মোবাইল নাম্বারটি চেক করে, সেন্ড অপশনে ক্লিক করুন। এরপর আপনার মোবাইলে একটি এসএমএস যাবে। যেখানে একটি কোড যাবে। কিছুটা এরকম – G-2***

আরও পড়ুন: সেলফ ডিজিটাল থেকে আয় করুন ঘরে বসে!

সেন্ড অপশনে ক্লিক করার পর নতুন আরেকটি পেজ আসবে।

• নতুন পেজে দেখা যাবে আপনার মোবাইলে যাওয়া কোড ওখানে লেখার জন্য enter verification code নামে একটা অপশন দেওয়া আছে। ওখানে এসএমএসে যাওয়া কোডটি লিখুন। এরপর verify অপশন ক্লিক করুন।

• মোবাইল নাম্বার ভেরিফিকেশনের পরবর্তী পেজে Privacy & Terms নামে একটা অপশন আসবে। অর্থাৎ আপনি গুগলের দেওয়া নিয়মনীতি মেনে চলবেন কিনা। এই ক্ষেত্রে আপনাকে I agree অপশনে ক্লিক দিতে হবে, পরবর্তী পেজে যাওয়ার জন্য।

• আপনি গুগলের Privacy & Terms গ্রহণ করার পর, নতুন পেজে Get more for your mobile number নামে একটা অপশন আসবে। অর্থাৎ, আপনি গুগলে অন্য সেবাগুলো নিতে আগ্রহী কিনা! যেহেতু আপনি জিমেইল আইডি খুলতে চান, সেহেতু Skip অপশনে ক্লিক করবেন।

অভিনন্দন, আপনার ইমেইল আইডি তৈরি হয়ে গেল। আমি আবারও বলছি, আপনার দেওয়া user name / email id এবং password সব সময় মনে রাখবেন। তাহলে আপনি যেকোনো মোবাইল বা কম্পিটার দিয়ে জিমেইলে লগিন করতে পারবেন। আর ইমেইলের সেটিংসে গিয়ে আপনি নিজের প্রোফাইল পিকচার ও তথ্য পরিবর্তন করে নিতে পারবেন।

ইমেইল পাঠাতে হলে, ইমেইল আইডিতে ডুকে Composed অপশনে ক্লিক করে To (যাকে পাঠাবেন তার ইমেইল), from (আপনার ইমেইল), Subject (যা পাঠাবেন তার শিরোনাম), এরপর নিচে বিস্তারিত লিখে মেইল করতে পারবেন।

আরও পড়ুন: সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস!

**********

আজকে আমরা জানলাম জিমেইল বা গুগল অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম বা তৈরি করার উপায় সম্পর্কে। খুব সহজেই মাত্র দুই মিনিটে তৈরি করা যায় মেইল আইডি। আপনি যদি এই পোস্ট পড়ে একটু হলেও উপকৃত হন; তবে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

মন্তব্য করুন: