নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকা কেন জরুরি?

এই পর্যন্ত আমরা ফ্রিল্যান্সিং কিংবা অনলাইনে আয় করা নিয়ে বেশ অনেকগুলো পোস্ট দিয়েছি। অনলাইনের সব কাজ চলে কিন্তু একেকটা ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই। ওয়েবসাইট ছাড়া অনলাইন জগৎ পুরোই মেরুদণ্ডহীন। বর্তমানে পৃথিবীতে এক বিলিয়নেরও বেশি ওয়েবসাইট রয়েছে। এই সংখ্যা দিন দিন বাড়ছেই। [এমনকি এই যে আমাদের উইকিহাউ৩৬০ সাইট এটাও একটা ওয়েবসাইট!] ২০২১ সালে এসে, এই ডিজিটাল বিপ্লবের যুগে, আপনার নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকাটা জরুরি হয়ে পড়েছে। কেন জরুরি, সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজব আমরা আজকের এই পোস্টে।

আরও পড়ুন: সাইটের জন্য বেস্ট থিম ও প্লাগিন খুঁজে নিন!

আপনার নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকা কেন জরুরি?

ধরুন, আপনার যেকোনো ধরনের একটা ব্যবসা আছে। সেটা এমন লোকেশনে আছে, যা শুধুমাত্র ওই এলাকায় বা আশে পাশের দুই একটা এলাকায় পরিচিত। কিন্তু বর্তমানে, প্রযুক্তির যুগে যে যেখানেই থাকুন না কেন, প্রায় সবাই-ই অনলাইনে যুক্ত। এখন সেটা হতে পারে ফেসবুকের মতো স্যোশাল মিডিয়ায় কিংবা কোনো কিছু প্রয়োজন হলে গুগলে সার্চ দেওয়াতে। ফলে আপনার ব্যবসার যেকোনো ডাটা কিংবা আপনার পণ্যের কোনো ডাটা যদি অনলাইনে থাকে, যেকোনো অনলাইন ইউজারই আপনার পণ্যটির সম্বন্ধে অনলাইন থেকে জেনে যাবে এবং প্রয়োজনে সে অনলাইন থেকেই পণ্যটি কিনেও ফেলতে পারবে! আর এইসব তথ্য যেখানে সাজানো থাকবে সেটা হলো ওয়েবসাইট। প্রত্যেকটি ব্যবসার জন্যেই বর্তমানে একটা নিজস্ব ওয়েবসাইট থাকা আবশ্যক।

আরও পড়ুন: বেস্ট প্রাইসে ডোমেইন কিনবেন কীভাবে?

কারণ আপনি  বর্তমানে ব্যবসা কিংবা চাকরি, যেটাই করেন না কেন, ভালো পরিমাণ ইনকাম জেনেরেট করতে হলে আপনাকে বেশি বেশি করে কানেকশন বাড়াতে হবে। আর এই কানেকশন বাড়ানোর জন্য সবচেয়ে বেস্ট উপায় হলো আপনার বা আপনার ব্যবসা সম্পর্কে অনলাইনে জানানো। কারণ বর্তমানে কেউ কারও সাথে যোগাযোগ বা ব্যবসা করতে চাইলে সাথে সাথেই অনলাইনে সার্চ করে।

মনে করুন, আপনি একটি রেস্টুরেন্টের মালিক। আপনার শহরের কেউ যদি জানতে চায় যে- শহরের সবচেয়ে ভালো রেস্টুরেন্ট কোনটি, তখন সে হয়তো গুগল এ গিয়ে সার্চ দেবে: best restaurant in dhaka. best restaurant in ctg.

এখন আপনার রেস্টুরেন্টের যদি কোনো ওয়েবসাইটই না থাকে তবে সেই কাস্টমার আপনার রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে কিছুই জানতে পারবে না। আর এই না জানার কারণে আপনি আপনার রেস্টুরেন্টের একজন গ্রাহক হারাবেন। যে রেস্টুরেন্টের ওয়েবসাইট আছে, গ্রাহকটি সেটাকেই সার্চ রেজাল্টে খুঁজে পাবে এবং ওইটাতেই খেতে যাবে কিংবা অনলাইনেই খাবার অর্ডার করবে। এভাবে শুধু একজন না, আপনি প্রতিদিন অসংখ্য কাস্টমারকে হারাবেন।

আরও পড়ুন: সেরা ৫টি ফ্রি সিএমএস প্ল্যাটফর্ম!

এখন যুগ বদলাচ্ছে, চলছে ডিজিটাল বিপ্লবের যুগ। এ সময়ে আপনি যদি নতুন যুগের সাথে তাল না মেলান, তবে ব্যবসায় কিংবা কর্মক্ষেত্রে টিকে থাকতে পারবেন না একদম। আর মাত্র ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যেই পৃথিবীতে ননক্রিয়েটিভ কমার্শিয়াল কাজে মানুষের ছুটি হয়ে যাবে হয়তো। মানুষের কাজের জায়গা দখল করবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। এমন পরিস্থিতিতে আপনি যদি ডিজিটালাইজেশনের সাথে নিজেকে খাপ খাওয়াতে না থাকেন, তবে মার্কেট থেকে ছিটকে পড়বেন, হয়ে যাবেন দেউলিয়া। দুটো উদাহরণ দেখা যাক:

এক সময় খুবই বিখ্যাত ক্যামেরা কোম্পানি ছিল কোডাক কিন্তু ডিজিটাল ক্যামেরার উদ্ভব দেখেও, সেটাকে অ্যাডপ্ট করেনি এই এনালগ ক্যামেরা কোম্পানিটি। ফলফল ছিল, বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি লস খেয়ে হাওয়া হয়ে যাওয়া!

এরপরেরটা সবারই পরিচিত- নোকিয়া মোবাইল কোম্পানি। অ্যান্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেম আসার পরও নোকিয়া তাদের সনাতন সিস্টেমে রয়ে গেছিল। শেষমেষ এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই সেলুলার মোবাইল কোম্পানিটিকে তাদের মালিকানা-ই বেচে দিতে হয়েছে। এখন অবশ্য নোকিয়া অ্যান্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোনে ফিরেছে নতুন মালিকানায়!

যাই হোক, এবার আমরা নিজের ওয়েবসাইট থাকার সুবিধাগুলো একটু দেখে নিই।

নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকার সুবিধা:

  • সহজে নিজের ব্যবসা বা যেকোনো প্রতিষ্ঠানের প্রসার ঘটানো যায়। বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছানো যায়।
  • ই-কমার্সের মাধ্যমে ব্যবসায়িক পণ্যের বিক্রি কয়েকগুন বাড়িয়ে দেওয়া যায়।
  • ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতায় অন্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকা যায়।
  • ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিজের ব্যবসা বাদেও, মাল্টিপল ওয়েতে প্রফিট জেনারেট করা যায়।

আরও পড়ুন: ৫টি ইন্টেরেস্টিং এনড্রয়েড এপ ২০২২!

প্রফিট জেনেরশনের উপায়:

  • গুগল এডসেন্স
  • গুগল এডমব
  • অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট
  • সিপিএ মার্কেটিং
  • লোকাল অ্যাড
  • ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল
  • ফেসবুক ভিডিও মনিটাইজেশন
  • ইউটিউব মনিটাইজেশন
  • ইন্সটাগ্রাম মার্কেটিং
  • টুইটার মার্কেটিং

ওয়েবসাইট নিয়ে আরও নতুন নতুন পোস্ট পেতে উইকিহাউ৩৬০তে চোখ রাখুন!

One thought on “নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকা কেন জরুরি?”

মন্তব্য করুন:

%d bloggers like this: