সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস!

বর্তমানে নবীন-তরুণদের কাছে ফ্রিল্যান্সিং হলো খুবই জনপ্রিয় পেশা। আমাদের এই উইকিহাউ৩৬০ সাইটে আমরা ইতিমধ্যে ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে বেশ কিছু পোস্ট করেছি। ওগুলো কেউ না পড়ে থাকলে, ফ্রিল্যান্সিং ক্যাটেগরিতে গিয়ে পড়তে পারেন! তো, বর্তমানে সারা বিশ্বে অসংখ্য ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস রয়েছে! ফলে, নতুন যারা ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরে কাজ করতে আসে, তারা কনফিউজড হয়ে যায়- কোনটাতে কাজ করবে এটা ভেবে ভেবে! মূলত নতুনদের জন্য আজকে আমরা সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করছি! এই পোস্টটি পড়ার পর, আশা করি, মার্কেটপ্লেস বেছে নিতে নতুনদের আর সমস্যা থাকবে না! চলুন তাহলে শুরু করা যাক!

আরও পড়ুন: বেস্ট প্রাইসে ডোমেইন কিনবেন কীভাবে?

সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস:

আপওয়ার্ক [UpWork]:

আপওয়ার্ককে বর্তমান ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোর রাজা বললে ভুল হবে না! এই মার্কেটপ্লেসে বর্তমানে সারা বিশ্বের প্রায় ১ কোটিরও বেশি ফ্রিল্যান্সার কাজ করছে। আপওয়ার্কে বর্তমানে রয়েছে ৪ লক্ষেরও বেশি কাজ। এই মার্কেটপ্লেসে দুইভাবে কাজ করা যায়! ১. ফ্ল্যাট রেটে কোনো কাজ করা  ২. প্রতিঘণ্টা রেটে কাজ। আপনি যদি দক্ষ ফ্রিল্যান্সার হোন, তাহলে আপনি খুব সহজেই এটাতে আপনার স্কিল অনুযায়ী কাজ করে আয় করতে পারবেন। এই মার্কেটপ্লেসে বর্তমানে ১০০০ এর বেশি ক্যাটেগরির কাজ রয়েছে। ফলে আপনি অনলাইনের যে ধরনের কাজে স্কিলড, সেই কাজই খুঁজে নিতে পারবেন সহজে!

ফাইভার [Fiverr]:

ফাইভারে হলো নতুনদের জন্য সবচেয়ে সহজ মার্কেটপ্লেস। অন্য মার্কেটপ্লেসগুলোতে আমাদের ক্লায়েন্টের কাজে বিড করে, কথা বলে, কাজ নিতে হয়; যা নতুনদের জন্য খুব ঝামেলার! কিন্তু ফাইভারে কোনো ক্লায়েন্টের প্রজেক্টে বিড করতে হয় না। ফাইভারে আপনি আপনার স্কিল অনুযায়ী কিছু গিগ তৈরি করে রাখবেন, ক্লায়েন্ট যদি আপনার গিগ দেখে পছন্দ করেন, তাহলে আপনাকে হায়ার করবে। ফলে ফাইভারে একবার ভালোমতো রিসার্চ করে, সময় নিয়ে, অপটিমাইজড ও অ্যাডভান্সড গিগ তৈরি করে রাখলে, পরে আপনাকে আর কষ্ট করতে হবে না। আপনার সময় ও শ্রম দুটোই বাঁচবে! বর্তমানে নতুনদের ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করার জন্য ফাইভার খুবই জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস!

আরও পড়ুন: সেরা ৫টি ফ্রি সিএমএস প্ল্যাটফর্ম!

ফ্রিল্যান্সার [Freelancer]:

ফ্রিল্যান্সারও বাংলাদেশিদের জন্য একটি জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস! আপনি ফ্রিল্যান্সারে কাজ করেও আপনার ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। বাংলাদেশের অনেক বড়ো বড়ো ফ্রিল্যান্সাররাই এই মার্কেটপ্লেসে কাজ করে সফলতা পেয়েছে এবং এখনো কাজ করে যাচ্ছে! ফ্রিল্যান্সারে বিড সিস্টেমে কাজ করতে হয়। তবে নতুনদের জন্য ফ্রিল্যান্সারের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফিচার হলো কন্টেস্ট। কন্টেস্ট জেতার মাধ্যমেই অনেকে এই মার্কেটপ্লেসে প্রতিষ্ঠিত হয়। আপনি চাইলে আপনার স্কিল অনুযায়ী এই মার্কেটপ্লেসে যেকোনো ধরনের কাজ করতে পারবেন।

পিপলপারআউয়ার [PeoplePerHour]:

পিপল পার আওয়ার, এটাও বর্তমানে একটি পপুলার মার্কেটপ্লেস। পিপল পার আওয়ার মার্কেটপ্লেসে অনেক ধরনের কাজ রয়েছে! যেমন- গ্রাফিক্সস, ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভলাপমেন্ট, রাইটিং এন্ড ট্রান্সলেশন, সেলস এন্ড মার্কেটিং, ভিডিয়ো ফটো অডিয়ো, সোস্যাল মিডিয়া, বিজনেস সাপোর্ট এবং সফটওয়্যার ডেভলাপমেন্ট এন্ড মোবাইল ক্যাটাগরি। এ ছাড়া অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের মতো এটাতেও রয়েছে হাজারেরও বেশি জব ক্যাটেগরি। এই মার্কেটপ্লেসে আপনি বিডিং সিস্টেমে কাজ করতে পারবেন! তবে এই মার্কেটপ্লেসে একটা সমস্যা আছে, সেটা হলো- নতুন অ্যাকাউন্টে আপনি ৩ মাসের মধ্যে কোনো কাজ না পেলে, অ্যাকাউন্টের ফ্রি মেম্বারশিপ বন্ধ হয়ে যাবে এবং সেটা আর চালাতে চাইলে আপনাকে টাকা পে করতে হবে!

আরও পড়ুন: উদ্ভট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ | আবুল হাসনাত বাঁধন

গুরু [Guru]:

গতবছরের সেরা ৫ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে তালিকায় ৩ নাম্বারে ছিল গুরু। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না, এটা পৃথিবীর প্রথম ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস! তবে শুরুতে এটার নাম ছিল ই-মুনলাইট!  অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের চাপে গুরুর জনপ্রিয়তা কিছুটা কমলেও, সবসময় সেরা পাঁচের মধ্যে অবস্থান করে! গুরুতে অ্যাকাউন্ট করা এবং সাজানো খুবই সহজ! এটাতেও বিডিং সিস্টেমে কাজ নিতে হয়! নতুন হিসেবে আপনি চাইলে গুরুতেও ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন!

ট্রুল্যান্সার [Truelancer]:

বাংলাদেশে খুব একটা জনপ্রিয় না হলেও অন্যান্য দেশে ট্রুল্যান্সার খুবই জনপ্রিয় একটা মার্কেটপ্লেস। এটা দেখতে কিছুটা ফ্রিল্যান্সার ডট কমের মতো হলেও, এটাতে ফ্রিল্যান্সারের চেয়েও অ্যাডভান্স অনেকগুলো ফিচার রয়েছে। নতুন হিসেবে আপওয়ার্ক, ফাইভার, ফ্রিল্যান্সারে ঘুরান্টি খাওয়ার চেয়ে, ট্রুল্যান্সারে কাজ শুরু করা হতে পারে বেস্ট চয়েজ! এটা বেশ বিগিনার ফ্রেন্ডলিও বটে!

এই ছিল আমাদের- সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস! এধরনের পোস্ট আরও পেতে চাইলে উইকিহাউ৩৬০ তে চোখ রাখুন!

আরও পড়ুন: জোছনাযুদ্ধ | সোহেল নওরোজ

 

5 thoughts on “সেরা ৬টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস!”
  1. এর মধ্যে কয়েকটা চিনতাম, কয়েকটা নতুন চিনেছি! ট্রাই করে দেখব! এমন গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট শেয়ার করা জন্য অশেষ ধন্যবাদ।

মন্তব্য করুন:

%d bloggers like this: